বাংলাদেশে ২৬শে ডিসেম্বর থেকে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত ইসির

cec
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ

বাংলাদেশে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নির্বিঘ্ন করতে সারা দেশে ২৬ ডিসেম্বর থেকে ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা করতে আগামী ২৬শে ডিসেম্বর থেকে সারা দেশে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে।

সশস্ত্র ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিনিধি এবং রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ একথা জানান।

ঢাকা থেকে বিবিসি বাংলার ওয়ালিউর রহমান মিরাজ জানাচ্ছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ জানিয়েছেন, ৯ই জানুয়ারি পর্যন্ত সারাদেশে সেনা সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। অর্থাৎ ৫ই জানুয়ারি ভোট গ্রহণের আরো চারদিন পর তাদের প্রত্যাহার করা হবে।

মিঃ আহমদ জানান, নির্বাচনী দায়িত্ব পালনকালে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সশস্ত্র বাহিনীর সঙ্গে ম্যাজস্ট্রেট থাকবে।

তিনি বলেন, যেসব আসনে ভোট গ্রহণ করা হবে, সেখানে সেনাবাহিনী নির্বাচন কমিশনের চাহিদা অনুযায়ী দায়িত্ব পালন করবে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, সংসদের তিনশো আসনের মধ্যে একশো চুয়ান্ন আসনে একজন করে প্রার্থী রয়েছেন, ফলে ঐসব আসনে ভোট গ্রহণ করতে হবে না।

দেশের অনেক এলাকায় এরই মধ্যে সেনা সদস্যদের উপস্থিতি দেখা গেলেও সশস্ত্র বাহিনী জানিয়েছে, শীতকালীন মহড়ার অংশ হিসেবে সেনাবাহিনী ঐসব এলাকায় গেছে।