BBC navigation

নির্বাচনী আচরণবিধি চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন

সর্বশেষ আপডেট রবিবার, 24 নভেম্বর, 2013 14:23 GMT 20:23 বাংলাদেশ সময়

জানুয়ারিতে নির্বাচন করবে নির্বাচন কমিশন

বাংলাদেশে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের আচরণবিধি চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন।

সরকারি কর্মকর্তা, মন্ত্রী বা প্রার্থীরা প্রচারণা চলাকালে কি কি করতে পারবেন আর পারবেন না -- তার নির্দেশনা রয়েছে এই আচরণবিধিতে। নির্বাচন কমিশনার মোঃ: শাহনেওয়াজ বলছেন, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা যাতে ক্ষমতার অপব্যবহার না করতে পারেন তা নিশ্চিত করতে যথেষ্ট ব্যবস্থা রাখা হয়েছে এই আচরণবিধিতে।

মি. শাহনেওয়াজ বলছেন, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা এ আচরণবিধি যথাযথভাবে মেনে চলবেন বলে তারা আশা করছেন।

নির্বাচন কমিশন বলছে, বাংলাদেশের সংবিধানে সংসদের শেষ ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার যে বিধান রয়েছে সে অনুসারেই তারা নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন এবং এভাবেই তারা নির্বাচনী আচরণবিধি প্রস্তুত করেছেন।

"আচরণ বিধি না মেনে চললে তো শাস্তির বিধান আছেই"

মো: শাহনেওয়াজ, নির্বাচন কমিশনার

মি. শাহনেওয়াজ বিবিসিকে বলেছেন, আচরণবিধি প্রস্তুতের সময় তারা খেয়াল রেখেছেন, প্রকৃতপক্ষে নির্বাচন করতে ঠিক কতটুকু সময় লাগবে এবং তারা সেই সময়টিকেই নির্বাচন কালীন সময় হিসেবে ধরে নিয়ে আচরণবিধিতে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছেন।

মি. শাহনেওয়াজ বলছিলেন, ‘নির্বাচনের সময় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা সরকারি গাড়ি, জনবল ব্যবহার করতে পারবেন না। এছাড়াও তারা সরকারি কাজে গিয়ে রাজনৈতিক কাজ করতে পারবেন না। এসব বিধি নিষেধ আরোপ করেই আমরা এ আচরণ বিধিমালা তৈরি করেছি।’

নির্বাচন কমিশন বলছে, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা যাতে ক্ষমতার অপব্যবহার না করতে পারেন তা নিশ্চিত করতে যথেষ্ট ব্যবস্থা রাখা হয়েছে আচরণবিধিতে

তিনি আরো জানান, আচরণবিধিতে এ বিষয়গুলো আনা হয়েছে ‘নির্বাচনে লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড’ তৈরি করার জন্যই এবং কোন প্রার্থী যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেটি নিশ্চিত করার জন্য। যদি কেউ এই আচরণ বিধি না মানেন সেক্ষেত্রে শাস্তির বিধানও রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

‘যারা আচরণ বিধি মানবেন না তাদের জন্য শাস্তিরও বিধান রাখা হয়েছে- ছ’মাস জেল এবং পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা। তবে আমরা আশা করি যারা সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে আছেন তারা দায়িত্বশীল আচরণ করবেন’- বলছিলেন মি. শাহনেওয়াজ।

তবে বিষয়টি কি শুধুই আশার মধ্যেই সীমাবদ্ধ? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আচরণ বিধি না মেনে চললে তো শাস্তির বিধান আছেই।’

নির্বাচনী আচরণবিধি চূড়ান্ত করা হলেও নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার মোঃ: শাহনেওয়াজ জানান, সিদ্ধান্ত হলেই তফসিল ঘোষণা করা হবে।

প্রধান বিরোধী দল নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবিতে নির্বাচন বর্জনের করলে নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নবিদ্ধ হবে কিনা এই প্রশ্নের জবাবে মি. শাহনেওয়াজ জানান, তেমনটা ঘটলে তাদের মধ্যে ‘অতৃপ্তি’ থেকেই যাবে এবং তেমন ঘটনা কিছুটা হলেও নির্বাচনের ‘অঙ্গহানি’ ঘটাবে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻