মনিপুরের বোমা বিস্ফোরণে দুজন নিহত

  • ৩০ অক্টোবর ২০১৩
মনিপুরে পুলিশ প্রহরা

উত্তরপূর্ব ভারতের রাজ্য মনিপুরে বুধবার এক বোমা বিস্ফোরণে অন্তত দুজন নিহত হয়েছেন।

রাজধানী ইম্ফলের ওই বিস্ফোরণ স্থলটি মুখ্যমন্ত্রী ও পুলিশের সদর দপ্তরের খুবই কাছে।

মনিপুরের পুলিশ বলছে বুধবার ভোর ছ’টা নাগাদ ইম্ফলের মইরাঙখম বাস স্ট্যান্ডে বিস্ফোরণ ঘটলে ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু হয়।

আরেকজন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও সাত জন।

পুলিশ জানিয়েছে বিস্ফোরকটি আগে থেকেই ওই বাসস্ট্যান্ড চত্বরে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল।

ঘটনাস্থল থেকে মুখ্যমন্ত্রী ওক্রাম ইববি সিংয়ের বাসভবন ও পুলিশ সদর দপ্তর মাত্র এক কিলোমিটার দূরে।

কোনও জঙ্গি গোষ্ঠীই এই বোমা বিস্ফোরণের সঙ্গে জড়িত বলে পুলিশের সন্দেহ। তবে বিকেল পর্যন্ত কোনও গোষ্ঠীই ঘটনার দায় স্বীকার করে নি।

মঙ্গলবারও ওই এলাকার একটি বাজারে একই ধরণের একটি বোমা বিস্ফোরণে পাঁচ জন আহত হন।

কাঙলেইপাক কমিউনিস্ট পার্টি, পিপলস লিবারেশন আর্মির মতো ছটি নিষিদ্ধ ঘোষিত গোষ্ঠী মনিপুরে সক্রিয়।

এছাড়াও নয়টি অন্য জঙ্গি গোষ্ঠীও রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় সক্রিয় – যাদের গেরিলা যোদ্ধাদের হাতে অত্যাধুনিক অস্ত্র আর সেগুলো চালানোর মতো প্রশিক্ষণ রয়েছে।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী মায়ানমার সীমান্তবর্তী এই রাজ্যে প্রায় ২৫টি এমন জঙ্গি সংগঠন রয়েছে – যারা খুব সক্রিয় না হলেও চাঁদাবাজিতে জড়িত।

উত্তরপূর্ব ভারতের অন্যান্য রাজ্যে আন্তর্জাতিক সীমান্ত প্রহরার দায়িত্ব বিএসএফের হাতে থাকলেও মনিপুরে তারা আইনশৃঙ্খলা রক্ষার অভ্যন্তরীণ দায়িত্ব পালন করে আর মায়ানমার সীমান্ত পাহারা দেয় আরেকটি আধাসামরিক বাহিনী – আসাম রাইফেলস।