নিউ ইয়র্কে মনমোহন সিং ও নওয়াজ শরীফ বৈঠক

  • ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৩
indo pak pm meeting
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভার পরে বৈঠকে মনমোহন সিং ও নওয়াজ শরীফ

ভারত এবং পাকিস্তানের দুই প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং নওয়াজ শরীফ কাশ্মীর সীমান্তে সহিংসতার ঘটনা কমিয়ে আনার ব্যপারে একমত হয়েছেন।

দুই নেতা নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভার পাশাপাশি এক ঘণ্টার জন্য একটি বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন।

দুই নেতা পরস্পরকে নিজেদের দেশে সফর করার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

যদিও সফরের কোন তারিখ নির্ধারিত হয়নি।

মে মাসে মি. শরীফ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবার পর দুই নেতার মধ্যে এটি প্রথম কোন দ্বিপাক্ষিক বৈঠক।

কাশ্মীর অঞ্চলে চলমান প্রাণঘাতী সংঘর্ষ নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে দু’ দেশের সম্পর্কে উত্তেজনা বেড়েছে।

তবে, উভয় দেশের কর্মকর্তারা দুই নেতার বৈঠকটিকে একটি সফল বৈঠক হিসেবে অভিহিত করছেন।

ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা শিভশঙ্কর মেনন বলেছেন সীমান্তে শান্তি ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার বিষয়টিই বৈঠকে সবচে’ বেশি গুরুত্ব পেয়েছে।

মি. মেনন বলেছেন যে দুই দেশই ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সুসম্পর্ক দেখতে চায়।

"এজন্য কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখায় শান্তি এবং স্বস্তি ফিরিয়ে আনা দরকার। ভারতের দিক থেকে সন্ত্রাসবাদ দমনের বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।"

মি. মেনন আরও বলেন যে উভয় দেশের মধ্যেই সহযোগিতার মনোভাব রয়েছে, তবে দু’দেশের মধ্যকার অমীমাংসিত বিষয়াবলীর সমাধান হতে কিছুটা সময় লাগবে।

অন্যদিকে, পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচি জলিল আব্বাস জিলানী বৈঠক সম্পর্কে বলেছেন যে ঐ বৈঠকে একটি সৌহার্দপূর্ণ আবহ ছিল ।

মি. জিলানী বলেছেন যে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বিশ্বাস করেন যে দুই দেশের সম্পর্কে বিরূপ প্রভাব ফেলেছে এমন বিভিন্ন ইস্যু নিয়েও দুই দেশ একত্রে কাজ করতে পারে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন যে কাশ্মীর সীমান্তের সমস্যা সমাধানের জন্য একটি ঐক্যমত্য প্রয়োজন।

গত বৃহস্পতিবার ভারত শাসিত কাশ্মীরের পুলিশ ফাঁড়িতে জঙ্গি হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছে।