BBC navigation

কাদের মোল্লার রায়ের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারের আপিল আগামী সপ্তাহে

সর্বশেষ আপডেট মঙ্গলবার, 19 ফেব্রুয়ারি, 2013 16:53 GMT 22:53 বাংলাদেশ সময়
abdul qader mollah

আব্দুল কাদের মোল্লা

বাংলাদেশ সরকার বলছে জামায়াতে ইসলামীর নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার রায়ের বিরুদ্ধে সরকার আগামী সপ্তাহে আপিল করতে পারে।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সংশোধন বিল- ২০১৩ সোমবার আইনে পরিণত হবার পর এখন তারা পুরো রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

সরকারের আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বিবিসি বাংলাকে বলেছেন তারা মনে করছেন কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে আনা ১৯৭১-এর মানবতা বিরোধী অপরাধের অভিযোগে তার সর্বোচ্চ সাজা হওয়া উচিত ছিল।

"আগামী সপ্তাহেই রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করবে বলে আশা করছি।"

কামরুল ইসলাম, আইন প্রতিমন্ত্রী

মি. ইসলাম বলেন “সংশোধিত আইনে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে রায়ের বিরুদ্ধে আসামী পক্ষের পাশাপাশি রাষ্ট্রপক্ষেরও আপিলের সমান সুযোগ রাখা হয়েছে। তাই আগামী সপ্তাহেই রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করবে বলে আশা করছি।”

তিনি বলেছেন আইনটি সংশোধনের আগে অর্থাৎ ১৯৭৩ সালের আইনে ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে সরকার পক্ষ থেকে উচ্চতর আদালতে যাওয়ার বা আপিল করার সুযোগ সীমিত ছিল।

পরে ২০০৯ সালে আইন সংশোধন করে এতে খালাসের রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের সীমিত সুযোগ যোগ হয়।

এখন সংশোধিত আইনে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে যুদ্ধাপরাধের বিচারের রায়ের বিরুদ্ধে আসামিপক্ষের পাশাপাশি রাষ্ট্রপক্ষেরও আপিলের সমান সুযোগ রাখা হয়েছে।

একইসঙ্গে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত ব্যক্তির পাশাপাশি যে কোনো দল বা সংগঠনের বিচারের সুযোগও রাখা হয়েছে সংশোধিত আইনে।

"রায়ের বিরুদ্ধে কোন্‌ ক্ষেত্রে রাষ্ট্রপক্ষ অসন্তুষ্ট সেটা তুলে ধরা হবে।"

মাহাবুবে আলম, অ্যাটর্নি জেনারেল

আপিলের বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহাবুবে আলম বিবিসিকে বলেন সংশোধিত আইনে তারা ট্রাইব্যুনালের পুরো রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন।

তিনি বলেন “এই লক্ষ্যে ট্রাইব্যুনালের রায়ের কপি এবং সাক্ষী যারা ছিলেন সে সংক্রান্ত তথ্যসহ সব তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। রায়ের বিরুদ্ধে কোন্‌ ক্ষেত্রে রাষ্ট্রপক্ষ অসন্তুষ্ট সেটা তুলে ধরা হবে।”

তিনি আরও বলেন “যে অভিযোগ থেকে তাকে খালাস দেওয়া হয়েছে সে বিষয়ে এবং যে অভিযোগগুলোতে তার যাবজ্জীবন সাজা দেওয়া হয়েছে, আমরা মনে করি দোষী সাব্যস্ত হলে এতে মৃত্যুদন্ডই উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত”।

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে আব্দুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে মোট ছয়টি অভিযোগ আনা হয়েছিল। এর মধ্যে পাঁচটিতে তিনি দোষী প্রমাণিত হন। আদালত তাকে এজন্যে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয় ৫ই ফেব্রুয়ারি।

কিন্তু কেরাণীগঞ্জের একটি গ্রামে শতাধিক মানুষকে হত্যার অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় তাকে সেই অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

আইন প্রতিমন্ত্রী বলেছেন এখন সংশোধিত আইনে তারা ট্রাইব্যুনালের পুরো রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন।

কাদের মোল্লাকে সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদন্ড না দেওয়ার পর সকল যুদ্ধাপরাধীর সর্বোচ্চ সাজার দাবিতে ঢাকার শাহবাগে ১৫দিন ধরে লাগাতার বিক্ষোভ চলছে।

একই ধরনের খবর

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻