BBC navigation

কাদের মোল্লার রায় আজ: জামায়াতের হরতাল চলছে

সর্বশেষ আপডেট সোমবার, 4 ফেব্রুয়ারি, 2013 11:33 GMT 17:33 বাংলাদেশ সময়

বাংলাদেশে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে করা মামলার রায় আজ কিছু পরে ঘোষণা করা হবে।

বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এই রায় ঘোষণা করবে।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রেজিস্ট্রার এ কে এম নাসিরউদ্দিন মাহমুদ সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে একথা জানান।

জামায়াতের হরতাল

এই ঘোষণার পরপরই জামায়াতে ইসলামী আজ সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে এবং আজ সকাল ৬টা থেকে এই কর্মসূচী পালন করছে দলটি ।

"রায় যদি আমাদের বিপক্ষে যায় তাহলে পরদিন থেকেই লাগাতার হরতালের কর্মসূচি দেওয়া হবে"

শফিকুল ইসলাম মাসুদ, জামায়াত নেতা

সোমবার দলের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল রফিকুল ইসলাম খান এক বিবৃতিতে এই কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেন।

ঢাকায় বিবিসি বাংলার সংবাদদাতা রাকিব হাসনাত জানাচ্ছেন কঠোর পুলিশী প্রহরায় হরতাল চলছে এবং রাস্তায় যানবাহনের সংখ্যা তুলনামূলক কম। মিরপুর ও শাহজাহানপুর সহ বেশ কিছু এলাকায় জামায়াতের কর্মিরা গাড়ি ভাংচুর করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। কিছু স্থানে হাত বোমার বিস্ফোরন ঘটেছে বলে পুলিশ নিশ্চিত করেছে। দূর পাল্লার যানবাহন চলাচল করছেনা এবং অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

জামায়াতে ইসলামীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে গঠিত ট্রাইব্যুনাল সরকারের নির্দেশিত ছকে আগামীকাল আবদুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে রায় প্রদান করে সরকার ঘোষিত শাস্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে এই কর্মসূচি দেওয়া হয়েছে।”

একই সাথে দলটি লাগাতার হরতালের হুমকিও দিয়েছে।

জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতা শফিকুল ইসলাম মাসুদ বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, "রায় যদি আমাদের বিপক্ষে যায় তাহলে পরদিন থেকেই লাগাতার হরতালের কর্মসূচি দেওয়া হবে।"

মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে শীর্ষ নেতাদের বিচার বাতিলের দাবিতে দলটি গত কয়েক দিন ধরেই সহিংস আন্দোলন করছে। তারা বলছে, আওয়ামী লীগ সরকারের নির্দেশে এই ট্রাইব্যুনাল পরিচালিত হচ্ছে।

সোমবার তারা রাজধানী ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ করে যখোনে সারাদেশ থেকে দলের নেতাকর্মীরা এই সমাবেশে যোগ দিয়েছেন।

সোমবার ঢাকায় জামায়াতে ইসলামীর সমাবেশ

সংবাদদাতা শায়লা রুকসানা জানান এই সমাবেশ ছিল শান্তিপূর্ণ এবং ঢাকায় পুলিশের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মতো।

সম্প্রতি পুলিশের কাছে থেকে সভা সমাবেশ করার অনুপতি না পেলেও সোমবার জামায়াতের সমাবেশে পুলিশ বাধা দেয়নি।

দলের কর্মীদেরকেও 'শিবির-পুলিশ ভাই ভাই' বলে শ্লোগান দিতে দেখা গেছে।

মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে গোলাম আযম, মতিউর রহমান নিজামীসহ দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের বিচার চলছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে।

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে এটা হবে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দ্বিতীয় রায়।

এর আগে ট্রাইব্যুনাল জামায়াতে ইসলামীর সাবেক সদস্য আবুল কালাম আযাদকে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে।

মি. আযাদ পলাতক রয়েছেন।

কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে অভিযোগ

ঢাকা থেকে সংবাদদাতা আহরার হোসেন জানিয়েছেন, কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের ছটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

ট্রাইব্যুনালের বিরুদ্ধে জামায়াত-শিবিরের সহিংস আন্দোলন

এসব অভিযোগের মধ্যে রয়েছে ঢাকার মিরপুরে হত্যা, গণহত্যা, ধর্ষণ, গণ-ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ ইত্যাদি।

এসব অপরাধের বেশিরভাগই হয়েছে ঢাকা ও তার আশেপাশের এলাকায়। এসব ঘটনায় ট্রাইব্যুনালে মোট ১২ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন।

মি. মোল্লার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের তদন্ত শুরু হয় ২০১০ সালে। পরে ডিসেম্বর মাসে রাষ্ট্র-পক্ষ কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনে। এবং ২০১২ সালের মে মাসে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে তার আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ শুরু হয়।

শুরুতে এই মামলাটি ট্রাইব্যুনাল-১-এ বিচারাধীন ছিল। পরে তা ট্রাইব্যুনাল-২-এ স্থানান্তর করা হয়।

টাইব্যুনালের আইনজীবীরা বলছেন, সবগুলো অভিযোগই সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে।

কিন্তু আসামী পক্ষের আইনজীবী বলছেন, কোনো অভিযোগই প্রমাণ করা সম্ভব হয়নি।

ঢাকা থেকে বিবিসি বাংলার সংবাদদাতারা বলছেন, আগামীকালের রায় ও হরতালকে কেন্দ্র করে জনমনে একধরনের আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻