BBC navigation

আমেরিকায় বাংলাদেশী ছাত্রের বিচার শুনানি

সর্বশেষ আপডেট বৃহষ্পতিবার, 10 জানুয়ারি, 2013 03:24 GMT 09:24 বাংলাদেশ সময়

যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে আটক বাংলাদেশি যুবক কাজী মোহাম্মদ রেজওয়ানুল আহসান নাফিসের মামলার শুনানি শুরু হয়েছে বুধবার।

নিউ ইয়র্ক থেকে সাংবাদিক লাবলু আনসার বিবিসিকে জানান, ব্রুকলিনের ইস্টার্ন ডিস্ট্রিক্ট ফেডারেল কোর্টে স্থানীয় সময় বুধবার সকালে কাজি নাফিসকে হাজির করা হয়। সেসময় তাকে ভাবলেনহীন এবং বিমর্ষ দেখাচ্ছিল।

কাজি নাফিসের বিরুদ্ধে ফেডারেল রিজার্ভ ভবন উড়িয়ে দেওয়ার যে অভিযোগ এসেছে, তার বিচার কিভাবে চলবে সে বিষয়ে আদালতে কাজি নাফিসের পক্ষে ফেডারেল সরকারের নিযুক্ত অ্যাটর্নি হেইডি সিজার ও সরকার পক্ষের কৌসুলি জেমস লুনাম আলোচনা করেন।

তার কিছু পরেই ফেডারেল কোর্টের চীফ জজ এমন কেলেন মামলা মুলতবি ঘোষণা করেন এবং ১৪ই ফেব্রুয়ারি পরবর্তী শুনানির দিন ঠিক করেন।

তবে আদালতে সরকারি কৌসুলি নাফিসের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের বিষয়ে জানান যে, যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আগেই বাংলাদেশে অবস্থান কালে তিনি যুক্তরাষ্ট্র বিরোধী জিহাদি তৎপরতায় প্ররোচিত হয়েছিলেন।

কাজি নাফিস

এর আলামত হিসেবে তারা আল কায়েদা নেতা আনোয়ার আল আওয়াউকি যাকে ২০১১ সালে ইয়েমেনে যুক্তরাষ্ট্রের জঙ্গি বিমান হামলায় হত্যা করা হয়েছে, তার অডিও ক্যাসেট তারা নাফিসের কাছ থেকে সংগ্রহ করেছেন বলে আদালতে তুলে ধরেন এবং তাকে আল কায়েদার একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে প্রমাণের চেষ্টা চালান।

তবে নাফিসের আইনজীবী জোড় দিয়ে বলেন, নাফিস নির্দোষ এবং তার মক্কেলকে ফাঁসানো হয়েছে।

সাংবাদিক লাবলু আনসার বলে, প্রচলিত রীতি অনুসারে যুক্তরাষ্ট্রে গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত কোনো ব্যক্তি গ্রেপ্তার হলে তাকে প্রথমে নিজের দোষ স্বীকার করে নেয়ার আহ্বান জানানো হয় এবং এতে তার শাস্তি কমিয়ে দেয়া হয়।

কিন্তু অভিযোগ অস্বীকার করলে পুর্নাঙ্গ শুনানি হয় এবং সেক্ষেত্রে শাস্তি লাঘবের কোনো সম্ভাবনা থাকে না। কাজি নাফিস আগেই আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন, ফলে এটি একটির পুর্ণাঙ্গ বিচার হিসেবেই আদালতে যাবে বলে জানাচ্ছেন সরকারি আইনজীবীরা।

গ্রেপ্তারের পরে শিল্পীর আঁকা ছবিতে মি. নাফিস

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আকরামুল কাদিরের প্রতিনিধি কনস্যুলার অফিসার মুহাম্মদ শামসুল হক এবং নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনেরাল মনিরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

কাজি নাফিসের পক্ষে জামিনের আবেদন জানানো হলেও, বিচারক সেই আবেদন নাকচ করে বিচার শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তাকে কারাগারে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

গত বছরের জানুয়ারি মাসে ছাত্র ভিসা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া কাজি নাফিসকে গত অক্টোবর মাসে এক স্টিং অপারেশনের মাধ্যমে গেপ্তার করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বাহিনী এফবিআই।

তার বিরুদ্ধে বিধ্বংসী অস্ত্র ব্যবহার করে নিউইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ভবন উড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা এবং আল কায়েদার সাথে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ আনা হয়। যদিও ঢাকায় কাজি নাফিসের পরিবার এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে এবং মিস্টার নাফিস ষড়যন্ত্রের স্বীকার বলে দাবি করেছে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻