BBC navigation

লাদেনের ওপর তৈরি ছবি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বিতর্ক

সর্বশেষ আপডেট বৃহষ্পতিবার, 20 ডিসেম্বর, 2012 13:46 GMT 19:46 বাংলাদেশ সময়

ওসামা বিন লাদেনকে নিয়ে তৈরি এক নতুন চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়ে এর প্রযোজক প্রতিষ্ঠানের কাছে চিঠি লিখেছেন তিনজন মার্কিন সেনেটর।

‘জিরো ডার্ক থার্টি’ নামের এই ছবিটি বুধবার যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পেয়েছে। সিআইএ এজেন্টরা কিভাবে ওসামা বিন লাদেনকে খুঁজে বের করেছে, তা নিয়েই মূলত ছবিটির কাহিনি।

কিন্তু সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জন ম্যাককেইন সহ তিনজন মার্কিন সেনেটর বলেছেন, এই ছবিতে এমন একটা ধারণা দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে যে নির্যাতনের মাধ্যমে সংগৃহীত তথ্যই ওসামা বিন লাদেনকে খুঁজে বের করতে সাহায্য করেছে।

এই তিন মার্কিন সেনেটর এ ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে সনি পিকচার্স এর প্রধান নির্বাহীর কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে স্বাক্ষরকারী অপর দুই সেনেটর হচ্ছেন ডিয়ান ফেইনস্টেইন এবং কার্ল লেভিন। এরা সবাই যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী সেনেট ইন্টেলিজেন্স কমিটির সদস্য।

‘জিরো ডার্ক থার্টি’র পরিচালক হচ্ছেন ক্যাথরিন বিগলো। তাঁর আগের একটি আলোচিত ছবি ‘দ্য হার্ট লকার’ অস্কার পেয়েছিল। এবারের ছবিটিও অস্কারের জন্য মনোনীত হতে পারে বলে আলোচনা চলছে।

তিন সেনেটর তাঁদের চিঠিতে বলেছেন, ছবিটি দেখে অনেকেই ধারণা করবেন এখানে যা দেখানো হয়েছে তা বাস্তব সত্য।

তাঁরা বলেন, সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো যে নির্যাতনকে একটা হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে, তা মার্কিন মূল্যবোধের বিরাট একটা ক্ষতি করেছিল। এটাকে যুক্তিসঙ্গত করার কোন সুযোগ নেই।

কিন্তু ক্যাথরিন বিগলো তাঁর ‘জিরো ডার্ক থার্টি’ ছবিতে এই নির্যাতনের পক্ষে সাফাই গাওয়ার চেষ্টা করেছেন বলে তারা অভিযোগ করেছেন। তাদের যুক্তি, নির্যাতনের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য ওসামা বিন লাদেনকে ধরতে সাহায্য করে বলে যে চিত্র এই ছবিতে দেখানো হয়েছে, তা সঠিক নয়।

ক্যাথরিন বিগলো এক বিবৃতিতে বলেছেন, ছবিতে নির্যাতনের বেশ কিছু বিতর্কিত পদ্ধতি তুলে ধরা হয়েছে। তিনি বলেন, ওসামা বিন লাদেনকে ধরতে কোন একক পদ্ধতিই যে তথ্য সংগ্রহে সহায়ক ছিল, এটা তারা বলেননি।

উল্লেখ্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেও এই ছবি নিয়ে বিতর্ক হয়েছে। প্রেসিডেন্ট ওবামার পুননির্বাচনে সাহায্য করার লক্ষ্যে এই ছবিটি প্রচারণার হাতিয়ার হিসেবে তৈরি করা হয় বলে অভিযোগ উঠে। এ কারণে ছবিটি তখন মুক্তি দেয়া হয়নি।

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻