BBC navigation

বাংলাদেশে চার ইসলামী দলের ঢিলেঢালা হরতাল

সর্বশেষ আপডেট বৃহষ্পতিবার, 20 ডিসেম্বর, 2012 03:11 GMT 09:11 বাংলাদেশ সময়
হরতাল চিত্র

ইসলামী দলগুলোর ডাকা হরতালে রাজধানীর চিত্র

বাংলাদেশে চারটি ইসলামপন্থী দলের ডাকা হরতালের কারণে বৃহস্পতিবার ঢাকার স্বাভাবিক নগর জীবনে কিছুটা বিঘ্ন ঘটেছে।

খেলাফত আন্দোলনসহ চারটি ক্ষুদ্র ইসলামপন্থী দল এই হরতাল ডেকেছিল তাদের ভাষায় ‘ইসলাম নির্মূলের চক্রান্তের’ প্রতিবাদে।

এ সপ্তাহেই বাংলাদেশের বামপন্থী দুটি দল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এবং ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবিতে হরতাল করার পর ১২টি ইসলাম পন্থী দলের নামে এই হরতাল ডাকা হয়। কিন্তু পরে জোটের আটটি দল জানায়, তারা এই হরতালের সাথে নেই।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ঢাকার বিভিন্ন রাস্তায় বাস, সিএনজি ও রিক্সা চলাচল করতে দেখা গিয়েছে। তবে ভাংচুরের আশংকায় রাস্তায় ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা ছিল অনেক কম।

সকাল দশটার দিকে ঢাকার বিভিন্ন এলাকার বিপনি বিতানগুলোও খুলতে শুরু করে।

অফিসযাত্রী অনেককেই লাইনে দাড়িয়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

ঢাকার সবগুলো গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টেই ছিল র‍্যাব ও পুলিশের কড়া নজরদারি।

দায়িত্বে নিয়োজিত এক পুলিশ কর্মকর্তা মেহেদি হাসান জানান, হরতালে যাতে কোন প্রকার বিশৃঙ্খলা না হয়, সে জন্যে তারা সতর্ক রয়েছেন।

ঢাকায় কয়েকটি হাত বোমার বিস্ফোরণ আর পুলিশের গাড়িতে ঢিল ছোঁড়ার মতো বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়া বড় ধরণের কোন গোলযোগের খবর পাওয়া যায়নি।

রাজধানীর কোন সড়কেই পিকেটারদের উপস্থিতি দেখা যায়নি। যে চার দলের আহবানে হরতাল করা হয়েছে, তাদের একটি বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের একজন নেতা জাফরুল্লাহ খান বলছেন, পুলিশ তাদের রাস্তাতেই নামতে দেয়নি।

তবে তিনি দাবি করেন, হরতাল সফল হয়েছে।

বগুড়া ও চট্টগ্রামে পুলিশের সাথে হরতাল সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে।

এ সময় সেখানে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻