BBC navigation

ব্যায় সঙ্কোচের প্রতিবাদে ইউরোপ জুড়ে ধর্মঘট

সর্বশেষ আপডেট বুধবার, 14 নভেম্বর, 2012 15:30 GMT 21:30 বাংলাদেশ সময়
europe

গ্রীসে সাধারণ ধর্মঘটের সময় বিক্ষোভ

সাধারণ ধর্মঘট আর বিক্ষোভে আবারও উত্তাল হয়ে উঠেছে ইউরোপ।

স্পেন, ইটালি, পর্তুগাল, গ্রীসসহ ইউরোপের ২৩টি দেশে সরকারী ব্যয় সংকোচ নীতির বিরুদ্ধে রাজপথে নেমেছে ট্রেড ইউনিয়নগুলো।

স্পেন এবং পর্তুগালে সাধারণ ধর্মঘটে অচল হয়ে পড়েছে জনপরিবহন ব্যবস্থা।

স্পেনের কয়েকটি শহরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়েছে পুলিশের।

ধর্মঘট চলছে ফ্রান্স, জার্মানী এবং পোল্যান্ডেও।

এক কথায় আজকের (বুধবার) দিনটিতে প্রায় সারা ইউরোপই যেন উত্তাল ।

গণ পরিবহন ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। অনেক জায়গায় বিমানের ফ্লাইট বাতিল বা সময় পরিবর্তন হচ্ছে।

"এ এক ভয়াবহ অবস্থা, চারদিকে শুধু ছাঁটাই, ছাঁটাই আর ছাঁটাই। ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে শুধু বিপদই দেখতে পাচ্ছি"

রোমের একজন বাসিন্দা

মাদ্রিদে সংঘর্ষ

মাদ্রিদ বিক্ষোভকারীরা বাস চলাচল বন্ধ করে দেবার চেষ্টা করলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ হয়েছে। স্পেনের আরো কয়েকটি শহরে সংঘর্ষ হয়েছে।

বিশেষ করে ভূমধ্যসাগর তীরবর্তী ইউরোপীয় দেশগুলো ইউরোজোনের সংকটে সবচাইতে গুরুতরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেকারণে সেসব দেশেই বিক্ষোভ বেশি হচ্ছে।

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের বাসিন্দা পাকুই ওলমো বলছেন, তিনি তার সন্তানদের কথা ভেবেই বিক্ষোভে নেমেছেন।

"আমার বাড়িতে দুটি ছেলে, একজন ভর্তুকি পাচ্ছে, আর আরেক জন গত তিন বছর ধরে বাড়িতে বসে আছে। সে কাজ করতে চায় না তা নয়, কিন্তু কোন কাজ নেই। সে কোন ভর্তুকিও পায় না, ফলে বাপ-মায়ের সাথে থাকা ছাড়া কোন উপায় তার নেই।"

ইতালির রোমের রাস্তায় একজন বিক্ষোভকারী বলেন,"এ এক ভয়াবহ অবস্থা, চারদিকে শুধু ছাঁটাই, ছাঁটাই আর ছাঁটাই। ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে শুধু বিপদই দেখতে পাচ্ছি।"

সবজায়গাতেই এক কথা, অর্থনীতিকে টেনে তুলতে গিয়ে সরকারগুলো যে ব্যয়সংকোচ কর্মসূচি নিয়েছে তা কাজ করছে না।

বেকারত্ব বাড়ছে, মানুষের মধ্যে তৈরি হচ্ছে ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগ।

"আমরা ভিন্ন ধরণের একটি ইউরোপ চাই, ব্যয়সংকোচের ইউরোপ নয় কারণ তাতে দারিদ্র আর বেকারত্ব তৈরি হচ্ছে "

মার্ক বেকার, বেলজিয়ামের ট্রেড ইউনিয়ন নেতা

"ভিন্ন ধরণের ইউরোপ চাই"

বেলজিয়ামের ট্রেড ইউনিয়নগুলোর একটি কনফেডারেশনের সচিব মার্ক বেকার বলছেন, প্রবৃদ্ধি বাড়াতে হলে, কাজ সৃষ্টি করতে হলে, নীতিগত পরিবর্তন দরকার।

"আমাদের বার্তাটা হেলা, আমরা ভিন্ন ধরণের একটি ইউরোপ চাই, ব্যয়সংকোচের ইউরোপ নয় কারণ তাতে দারিদ্র আর বেকারত্ব তৈরি হচ্ছে । আমরা এমন ইউরোপ চাই যাতে প্রবৃদ্ধি আছে কাজ আছে, তা পেতে হলে আজ যে মডেল চলছে তা বদলাতে হবে"

"বেলজিয়ামেই ব্যয়সংকোচের কি পরিণতি হয়েছে দেখুন... ক'দিন আগেই শুনেছি ফোর্ড কোম্পানি দশ হাজার শ্রমিক ছাটাই করছে। আরো নতুন নতুন প্রতিষ্ঠান তাদের দরজা বন্ধ করে দিচ্ছে।"

অনেক অর্থনীতিবিদ মনে করছেন এতগুলো ইউরোপিয়ান দেশে যখন মন্দা চলছে তখন এই ব্যয় সংকোচ চালিয়ে যাওয়াটা পাগলামি ছাড়া আর কিছুই নয়।

সম্প্রতি আইএমএফও স্বীকার করেছে যে ব্যয়সংকোচের প্রতিক্রিয়া যে এত তীব্র হবে তা বুঝতে তারা ভুল করেছে। ফলে স্পেন, গ্রিস আর পর্তুগালে এখন ঘটতি কমানোর লক্ষ্যমাত্রা কমিয়ে দেয়া হয়েছে।

বিবিসির বিশ্লেষক গেভিন হিউইট বলছেন, ইউরোপিয়ন কমিশন এখনো মনে করে যে ব্যয়সংকোচ, ঘাটতি কমানো এবং সংস্কার যতই কষ্টকর হোক, শেষ পর্যন্ত তা ইউরোপে আস্থা ফিরিয়ে আনবে।

তবে প্রশ্ন হলো, ইউরোপের ক্ষুব্ধ জনগণের ধৈর্যের বাঁধ ততদিন টিকবে কিনা।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻