BBC navigation

সিরিয়ায় ক্লাস্টার বোমা ব্যবহার নিয়ে উদ্বেগ

সর্বশেষ আপডেট রবিবার, 14 অক্টোবর, 2012 15:08 GMT 21:08 বাংলাদেশ সময়
cluster bomb

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সিরিয়ার সৈন্যদের ক্লাস্টার বোমা ব্যবহারের তথ্য প্রথমবারের মতো পেয়েছিল এ বছর জুলাই মাসে।

তখন তা চিহ্নিত হয়েছিল বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে এবং তা খুব একটা নিশ্চিত করা যায় নি।

কিন্তু এখন সংস্থাটি বলছে যে সিরিয়ায় সরকারি বিমানবাহিনীর বোমাবর্ষণের যে সব ভিডিও অনলাইনে ছাড়া হচ্ছে - তাতে এই ক্লাস্টার বোমা ব্যবহারের অভিযোগ নাটকীয়ভাবে বেড়ে গেছে।

গত ১৮ মাসে ক্লাস্টার বোমা ফেলার অভিযোগ ছিল মাত্র তিনটি, কিন্তু গত এক সপ্তাহে এরকম খবর পাওয়া গেছে প্রায় ২০টি।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের জাতিসংঘ সংক্রান্ত পরিচালক ফিলিপ বোলোপিওন বলছেন, সিরিয়ার মানুষের জীবনের প্রতি সেদেশের শাসকগোষ্ঠীর দৃষ্টিভঙ্গি কেমন তা এতেই বোঝা যায়।

"সিরিয়ার সরকার যে তার নিজের নাগরিক ও শিশুদের জীবনের ব্যাপারে সম্পূর্ণ অবজ্ঞাসূচক ধারণা পোষণ করে - তার আর কোন প্রমাণ যদি আপনার দরকার থেকে থাকে তাহলে এখানেই তা পাওয়া যাবে। কারণ আমরা এখন জানতে পারছি যে সরকার জনবহুল এলাকার ওপর ক্লাস্টার বোমার মত অস্ত্র ব্যবহার করছে।"

"আমাদের গবেষকরা নিশ্চিত করেছেন যে ভিডিওগুলোতে যে বোমা ফেলতে দেখা যাচ্ছে তা আর বি কে টু ফাইভ জিরো, যা সোভিয়েত ইউনিয়নের যুগে তৈরি।"

ফিলিপ বোলেপিওন, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ

ক্লাস্টার বোমার বিপদ

ক্লাস্টার বোমা প্রথম আবিষ্কৃত হয়েছিল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়। এগুলো হচ্ছে এমন এক ধরণের বোমা যা বিমান থেকে ফেলার পর মাঝ আকাশে ভেঙে বা খুলে যায় এবং সেখান থেকে শত শত ছোট ছোট বোমা বেরিয়ে মাটিতে পড়তে থাকে।

এগুলো যদি মাটিতে পড়ে না-ও ফাটে , তা হলেও তা বহু দিন পর্যন্ত সক্রিয় থাকে এবং মৃত্যুর কারণ হয়।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলছে, সবশেষ যেসব ক্লাস্টার বোমা ফেলার খবর তারা পেয়েছে সেগুলো রাশিয়ায় তৈরি আরবিকে-টু-ফাইভ-জিরো ধরণের এবং তাতে একটি বোমার মধ্যে ৪০টির বেশি ছোট ছোট বোমা থাকে।

ফিলিপ বোলোপিওন বলছেন, "আমাদের গবেষকরা নিশ্চিত করেছেন যে ভিডিওগুলোতে যে বোমা ফেলতে দেখা যাচ্ছে তা আর বি কে টু ফাইভ জিরো, যা সোভিয়েত ইউনিয়নের যুগে তৈরি।

যেহেতু এগুলো পুরনো তাই মাটিতে পড়ার পরপরই না ফাটলেও, কয়েক সপ্তাহ, মাস এমনকি বছর পর্যন্ত পর্যন্ত সক্রিয় থাকতে পারে এবং বেসামরিক লোক এবং শিশুদের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক হতে পারে।"

আলেপ্পোর কাছাকাছি একটি শহরের অধিবাসীরা বলেছেন, যে তারা হেলিকপ্টার থেকে এমন বোমা ফেলতে দেখেছেন যা আকাশে দু টুকরো হয়ে যায় এবং ছোট ছোট অনেকগুলো বোমা একটি জলপাই ক্ষেতের ওপর ছড়িয়ে পড়ে।

তবে সাম্প্রতিক ক্লাস্টার বোমা নিক্ষেপে কোন বেসামরিক লোক হতাহত হয়েছে কিনা তা জানা যায় নি।

এ পর্যন্ত একশ'টি দেশ ক্লাস্টার বোমা উৎপাদন ও ব্যবহার নিষিদ্ধ করার আন্তর্জাতিক কনভেনশনে স্বাক্ষর করেছে। কিন্তু সিরিয়া তাতে স্বাক্ষর করে নি।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻