BBC navigation

রামুর ঘটনায় আবার বিরোধীদলের প্রতি অভিযোগ

সর্বশেষ আপডেট সোমবার, 8 অক্টোবর, 2012 15:44 GMT 21:44 বাংলাদেশ সময়
রামুর বৌদ্ধ মন্দির

রামুর বৌদ্ধ মন্দির

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় জেলা কক্সবাজারের বৌদ্ধমন্দিরে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় বিরোধী দল বিএনপির স্থানীয় সংসদ সদস্যের উস্কানিকে দায়ী করেছেন।

কক্সবাজারের রামু উপজেলায় এক সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় তিনি বলেন, “রামুতে হামলার আগে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, পুলিশ, উপজেলা প্রশাসন সেখানকার উত্তেজিত মানুষকে শান্ত করার চেষ্টা করছিল। কিন্তু সেই সময় বিএনপির স্থানীয় এমপি গিয়ে সেখানে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন। তারপর হাজার হাজার মানুষ লাঠিসোঁটা নিয়ে মন্দিরে আগুন দেয়।”

রামুর বৌদ্ধপল্লীতে ব্যাপক সহিংসতার প্রায় এক সপ্তাহ পর শেখ হাসিনা সোমবার কক্সবাজারে পৌঁছান।

সেখান থেকে রামুতে গিয়ে তিনি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে দেখেন। এ সময় তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথে কথাবার্তা বলেন।

সামাজিক যোগাযোগ ওয়েবসাইট ফেসবুকে মুসলমানদের পবিত্রগ্রন্থ কোরানের অবমাননাকর একটি ছবি প্রকাশের জের ধরে গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে রামু উপজেলায় বিক্ষুব্ধ জনতা ১২টি বৌদ্ধমন্দিরে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এছাড়া সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

এর আগে রামুতে হামলার পরদিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীরও বিএনপির সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজলের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।

তবে মি. রহমান এক বিবৃতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ওই বক্তব্যকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার চেষ্টাপ্রসূত বলে উল্লেখ করেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারাও অভিযোগ করে আসছেন যে, সরকারের উস্কানিতেই রামুতে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

রামুর সমাবেশে বৌদ্ধ সম্প্রদায়কে আশ্বস্ত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এ সব হামলার ঘটনায় যারা জড়িত, তাদের কাউকে রেহাই দেয়া হবে না।

জড়িত ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তি দেয়া হবে বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন।

“বৌদ্ধবিহারে হামলার ঘটনায় আমি মর্মাহত ও হতাশ। বাংলাদেশে এর আগে এ রকম জঘন্যতম ঘটনা ঘটেনি। আন্তর্জাতিকভাবে দেশের সম্মান ক্ষুণ্ন করতেই এই হামলা হয়েছে,” শেখ হাসিনা বলেন।

একই ধরনের খবর

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻