আশুলিয়ায় আরও শ্রমিক সংঘর্ষ

bdgarments

আশুলিয়ায় সংঘর্ষ

বাংলাদেশে ঢাকার কাছে তৈরি পোশাক কারখানা অধ্যূষিত আশুলিয়া এলাকায় দ্বিতীয় দিনের মতো ব্যাপক সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার সকাল থেকে এ এলাকার শতাধিক কারখানার শ্রমিকেরা দফায় দফায় বিক্ষোভ, ভাংচুর চালায় এবং পুলিশের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এসব ঘটনায় অর্ধশতাধিক আহত হবার খবর পাওয়া গেছে।

মূলত শনিবার সংঘর্ষের এক পর্যায়ে গাড়িচাপা পড়ে কামরুন নাহার নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হলে বিক্ষোভের শুরু হয়। এসব ঘটনায় শনিবার ওই এলাকার শ’চারেক গার্মেন্টস বন্ধ ছিলো এবং রবিবারও তা বন্ধ থাকে। পুলিশ বলছে, এর পর আজ দ্বিতীয় দিনেও ঢাকার অদূরে আশুলিয়ার কাছে টঙ্গী এবং বাইপাইল সড়ক শ্রমিক বিক্ষোভে অশান্ত হয়ে ওঠে।

তৈরী পোশাক শিল্পে নতুন এই অসন্তোষ, গোলযোগ ও সহিংসতায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তৈরী পোশাক মালিকদের সমিতি বিজিএমইএ।

সমিতির সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বিবিসিকে বলেছেন, তাদের এই খাতের বিরুদ্ধে, তার ভাষায় অব্যাহত চক্রান্তের অংশ হিসেবে এই পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে বা করা হয়েছে। তার সাক্ষাতকার শুনুন এখানে>

শনিবারের সংঘর্ষ চলার সময় আশুলিয়ার হামীম গ্রুপের একটি কারখানা থেকে সোলায়মান নামে এক শ্রমিককে আটক করে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল আলম জানান, রবিবার সকালে গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে আটক সোলায়মানকে পাওয়া যাচ্ছে না এবং এরপরেই ছড়িয়ে পড়ে সহিংসতা।

bd garments

ঘটনাস্থল থেকে সংবাদদাতারা বলছেন, সংঘর্ষ চলাকালে সড়কের দুপাশে থাকা প্রায় প্রতিটি কারখানা ভাংচুরের শিকার হয় এবং মহাসড়কে কুড়ি পঁচিশটির মতো যানবাহণে ভাংচুর চালায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকেরা।

সাংবাদিক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এসব সংঘর্ষে সাংবাদিক, পুলিশ শ্রমিক সহ ৫০ জনেরও বেশী আহত হয়েছে বলে জানাচ্ছেন সংবাদদাতারা। পুলিশ বলছে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারগ্যাস ছুঁড়েছে তারা।

কয়েক ঘন্টাব্যাপী ওই সংঘর্ষ দুপুরের কিছু আগে নিয়ন্ত্রণে আসে। এরপর রবিবারের মতো ওই এলাকার সব কারখানা বন্ধ করে দেয়া হয়।

রবিবার বিকেলে ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র একটি সংবাদ সম্মেলন করে দাবি জানায়, কামরুন নাহার গাড়ি চাপা পড়ে নয়, পুলিশী নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে। এদিকে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য তৈরি পোশাক শিল্প মালিক ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ রবিবার সন্ধ্যায় একটি জরুরী বৈঠকে বসবে বলে কথা রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

অডিও খবর

ছবিতে সংবাদ

বিশেষ আয়োজন

BBC navigation

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻