মার্কিন প্রস্তাবকে স্বাগত জানালো ইরান

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আল খামেনি দেশটির পরমানু ইস্যু নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছেন ।

আয়াতুল্লাহ আল খামেনি

আয়াতুল্লাহ আল খামেনি

আলোচনার মাধ্যমে এই সঙ্কট সমাধানের এক নতুন উপায় উন্মোচিত হতে পারে বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যে প্রস্তাব দিয়েছিলেন সে সম্পর্কে মিস্টার খামেনি আরো বলেন, সেখানে অনেক ভালো ভালো কথা বলা হলেও, নিষেধাজ্ঞা আরোপের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে ইরানি জনগণকে তাদের পদতলেই রাখতে চায়।

এদিকে বিশ্বের শক্তিধর ছয়দেশ বলছে, কোনো পূর্বশর্ত ছাড়াই ইরানকে আলোচনায় বসতে হবে।

মর্কিন প্রেসিডেন্ট মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেন, ইরানের পরমানু কর্মসূচি বিষয়ে আলোচনার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে।

এছাড়া মিস্টার ওবামা ওই বিবৃতিতে ইরানে সামরিক অভিযান চালোনোর জন্য রিপাবলিকান দলের দাবির সমালোচনাও করেন। ইরানের টেলিভিশনে দেয়া এক বক্তব্যে মিস্টার আয়াতুল্লাহ আল খামেনি মার্কিন এই অবস্থানকে স্বাগতে জানিয়ে বলেন, বারাক ওবামার বক্তব্য তার প্রজ্ঞার পরিচয় দিয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলছেন, দুদিন আগে তারা জেনেছেন যে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের কথা ভাবছেন না, এটা খুবই ভাল ও বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্ত। তিনি বলেন , এতে করে তাদের ঘোর কেটে গেছে বলে মনে হচ্ছে।

এর আগে ইরানে জাতিসংঘের পরমানু বিষয়ক পর্যবেক্ষকদের প্রবেশের অনমুতি দিতে দেশটির প্রতি আহ্বান জানায় শক্তিধর ছয় দেশ যুক্তরাষ্ট্র, বৃটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, রাশিয়া ও চীন ।

ভিয়েনায় বুধবার জাতিসংঘের পরমানু পর্যবেক্ষণ বিষয়ক সংস্থা আইএইএ -এর সদরদপ্তরে এক বৈঠকে তারা এই আহ্বান জানায়।

এরপর গতকাল এক যৌথ বিবৃতিতে কোনা পূর্বশর্ত ছাড়াই আলোচনায় বসার জন্যও তেহরানকে আহ্বান জানানো হয়।

এদিকে আনবিক শক্তি সংস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি রবার্ট উড হুমকি দিয়েছেন ইরানকে অবশ্যই আন্তর্জাতিক মহলের দাবির প্রতি সাড়া দিতে হবে অন্যথায় কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

তিনি এখানে ইরানকে সতর্ক করে বলছেন, এই বিবৃতির মাধ্যমে ইরানকে জানানো হচ্ছে যে, তারা যদি পর্যবেক্ষণকাজে যথাযথ সহযোগিতা না করে তবে জুন মাসে পরবর্তী বৈঠকে ইরানের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করা হবে।

আইইএতে ইরানের প্রতিনিধি

আইইএতে ইরানের প্রতিনিধি

এদিকে বিশ্ব আনবিক সংস্থায় ইরানের প্রতিনিধি আলী আসগর সুলতানিয়াহ পার্চিন প্রদেশে পারমানবিক অস্ত্র তৈরি হচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক মহলের উদ্বেগের বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি বলেন, হয়তো সেখানে পর্যবেক্ষকদের প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে।

তবে শান্তিপূর্ণ উদ্দেশ্যে পরমানু কর্মসূচি চলবে। নিষেধাজ্ঞা আরোপ বা সাইবার হামলা করে এবং বিজ্ঞানীদের ওপর হামলা চালিয়ে কোনো ফল হবে না।

এ সপ্তাহের শুরুতে আলোচনায় বসার জন্য ইরানের প্রস্তাবে সম্মত হয় ক্ষমতাধর ছয় দেশ।

ইরানের পরমানু স্থাপনায় ইসরাইল হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে এমন আশঙ্কার পরিপ্রেক্ষিতে ইরান এই প্রস্তাব দেয়। তবে আলোচনার দিনক্ষণ এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

সর্বশেষ সংবাদ

অডিও খবর

ছবিতে সংবাদ

বিশেষ আয়োজন

BBC navigation

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻