মাঠে ময়দানে

৭ ডিসেম্বর ২০১৩ শেষবার আপডেট করা হয়েছে ২৩:৩২ বাংলাদেশ সময় ১৭:৩২ GMT

পেশাদার বক্সার হতে চেয়েছিলেন নেলসন ম্যান্ডেলা

দক্ষিণ আফ্রিকায় যদি বর্ণবাদ না থাকতো, নেলনস ম্যান্ডেলাকে যদি বিপ্লবী রাজনীতিক না হতে হতো, তাহলো হয়তো তিনি একজন পেশাদার মুষ্টিযোদ্ধা হতেন।

প্রয়াত মি ম্যান্ডেলা নিজেই বলেছিলেন, তার স্বপ্ন ছিল পেশাদার বক্সার হওয়ার।

২০০২ সালে বিবিসির সাথে এক সাক্ষাৎকারে মি ম্যান্ডেলা বলেন প্রথম মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ পেশাদার হেভিওয়েট মুষ্টিযোদ্ধা জো লুইস তাকে উদ্বুদ্ধ করতেন।

১৯৩৬ সালে জো লুইস এবং নাৎসি জার্মানির ম্যাক্স স্মেলিংয়ের ফিরতি লড়াইতে লুইসের বিজয়ে উদ্বেলিত হয়েছিলেন তিনি।

"জার্মানরা যে অন্য সবার থেকে, বিশেষ করে কালোদের থেকে সেরা, হিটলারের সেই সূত্রকে সেদিন গুড়িয়ে দিয়েছিলেন লুইস। সে কারণে আমি বলি কৃষ্ণাঙ্গ রোল মডেল দরকার, যাতে দেখানো যায় যে সুযোগ পেলে কালোরাও সাদাদের মতই সাফল্য পেতে পারে"।

২৭ বছরের কারাবাস থেকে বের হওয়ার পর বারবার তিনি খেলাধুলোকে গুরুত্ব দিয়েছেন নেলসন ম্যান্ডেলা।

বর্ণবাদের সময় দক্ষিণ আফ্রিকার রাগবি দলকে দেখা হত শ্বেতাঙ্গ শাসনের প্রতীক হিসাবে। কৃষ্ণাঙ্গদের কোন জায়গাই ছিলনা সেখানে।

১৯৯৪ এর নির্বাচনে তার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরেও রাগবি ছিল শুধুই শ্বেতাঙ্গদের খেলা। কিন্তু ১৯৯৫ সালের রাগবি বিশ্বকাপের সময় তার দল এএনসির আপত্তি সত্বেও জাতীয় দলের জার্সি পরে কেপটাউনে অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে স্টেডিয়ামে গিয়েছিলেন মি ম্যান্ডেলা।

সেই ঘটনা দক্ষিণ আফ্রিকার জাতিগত সমঝোতার ক্ষেত্রে একটি মাইলফলক হিসাবে দেখা হয়।

স্পটলাইটে ভারতীয় বোলিং

জোহানসবার্গে বৃহস্পতিবার সিরিজের প্রথম একদিনের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা নাস্তানাবুদ করে হারিয়েছে ভারতকে। ভারতের বোলারদের বেধড়ক পিটিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা ।

সিরিজে আরো দুটি ওডিআই এবং দুটো টেস্ট ম্যাচ রয়েছে। কতটা প্রতিযোগিতা হবে ?

লন্ডনে ক্রিকেট ভাষ্যকার আশীষ রায় বলেন, এই মানের পেস বোলিং এবং অনভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানদের নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে তাদের হারানো খুব কঠিন।

প্রথম ম্যাচের পর ভারতের বোলিং নিয়ে যে উদ্বেগ, উপহাস আর নিন্দা চলছে তা কতটা যৌক্তিক? এই প্রশ্নে মি রায় বলেন ভারতের পেস বোলিং সবসময়ই কমবেশি দুর্বল ছিল, এখনও তা থেকে তেমন উত্তরণ হয়নি।

তিনি বলেন, তরুণ বোলারদের হয়ত প্রতিভা রয়েছে, কিন্তু দেশের বাইরে খেলার অনভিজ্ঞতার কারণে এই সিরিজে হয়ত ভারত ভুগবে।

শাকিল আনোয়ার